র‌্যাবের গুলিতে নিহত সন্দেভাজন মাদকসেবী

251
0

রাজধানীর মালিবাগ রেলগেট এলাকায় র‌্যাবের সাথে কথিত বন্দুকযুদ্ধে ইকবাল আহমেদ (৪২) নামের এক ব্যাক্তি নিহত হয়েছে। র‌্যাবের দাবি সে মাদক ব্যবসায়ী। এ ঘটনায় আহত হয়েছে নারী সহ ২জন। রবিবার সকাল ৬টার দিকে এই ঘটনাটি ঘটে। আহতরা হলেন রাফিজা জেসমিন (৩০) ও তাঁর ছোট ভাই নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র মাসনুর হাসান (২২)।

আহতদেরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। আর নিহতের লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।

র‌্যাব-২ এর কোম্পানী কমান্ডার পুলিশ সুপার মুহাম্মদ মহিউদ্দিন ফারুকী জানান, কক্সবাজার থেকে ইয়াবার চালান আসছে এমন খবরের ভিত্তিতে ভোরে মালিবাগ সোহাগ বাস কাউন্টারের সামনে অবস্থান নেয় র‌্যাব সদস্যরা। মাদক চোরাকারবারী চক্রটি বাস থেকে নেমে ইয়াবার চালানসহ একটি প্রাইভেটকারে উঠছিল।

তিনি জানান, তখন র্যাব সদস্যরা এগিয়ে গেলে চোরাকারবারী দলটি র্যাবের উপর গুলি চালিয়ে প্রাইভেটকার নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। জবাবে র্যাব পাল্টা গুলি চালালে ওই মাদক ব্যাবসায়ী নিহত ও বাকি ২জন আহত হয়।

তাদের কাছ থেকে লক্ষাধিক পিস ইয়াবা, একটি বিদেশি পিস্তল, একটি।ম্যাগজিন, ৪ রাউন্ড গুলি, ১১টি মোবাইল সেট, বিভিন্ন ব্যাংকের চেকবই, ও নগদ ২ লাখ টাকা ও প্রাইভেটকার জব্দ করা হয়েছে। গুলিতে র‌্যাবের তিন সদস্য আহত হয়েছে বলে জানান তিনি।

আহতদের বাবার নাম মাহমুদ হাসান তালুকদার। বাড়ি জয়পুরহাট আক্কেলপুর উপজেলার সোনামুখি গ্রামে। বর্তমানে আদাবর ১৩ নম্বর রোডের ৬৮০/সি নম্বর বাসায় থাকে। মাসনুর হাসান নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সিএসই বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র বলে জানা যায়।

নিহতের স্ত্রী শামীম আরা শারমিন জানান, ইকবাল নারায়নগঞ্জ সদর উপজেলার টানপাড়া এলাকায় থাকেন। আর তিনি ৩ সন্তানকে নিয়ে উত্তরখান মাষ্টারবাড়ি এলাকায় থাকেন। স্বামীর সাথে তার তেমন যোগাযোগ নেই। মাঝে মাঝে কথা হতো। ইকবাল পেশায় কি করতো তাও বলতে পারেননি তিনি।

আহত মাসনুর জানান, ইকাবাল আমাদের অনেক দিনের পরিচিত। তার বোনের সাথে বিয়ের কথা চলছিল ইকবালের। গতকাল রাতে ইকবাল কক্সবাজার থেকে ঢাকায় তাদের বাসায় আসতেছিল। এজন্য তারা দু ভাইবোন ইকবালকে রিসিভ করতে মালিবাগ রেলগেটে যায়। ইকবাল ইয়াবার ব্যবসা করে নাকি অন্য কি করে তা তারা জানেনা না বলে জানায়।