রপ্তানিতে ইইরোপিয়ান বাজার গুরুত্বপূর্ণ : বিজিএমইএ সভাপতি

32
0

বাংলাদেশের রপ্তানির জন্য ইউরোপিয়ান বাজার সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ বলে জানিয়েছেন বিজিএমইএ সভাপতি ফারুক হাসান। তিনি বলেন, ২০২৬ সাল থেকে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পর বাংলাদেশের জন্য সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ হবে ইইউ বাজারে জিএসপি প্লাসের আওতায় পণ্য রপ্তানির সুবিধা পাওয়া। তিনি এ বিষয়ে ইইউ রাষ্ট্রদূতের সহযোগিতা কামনা করেন।
বাংলাদেশে নিযুক্ত ইইউ’র রাষ্ট্রদূত রেন্সজে তেরিংক মঙ্গলবার বিজিএমইএ অফিসে সদ্য নির্বাচিত সভাপতি ফারুক হাসানের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। সাক্ষাৎকালে তারা বিভিন্ন বানিজ্য সংক্রান্ত বিষয়াবলী বিশেষ করে, পোশাক শিল্পে সাসটেইনিবিলিটি, স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হওয়ার প্রেক্ষিতে ইইউ-বাংলাদেশ অংশীদারিত্ব আরও জোরদারকরন প্রভৃতি নিয়ে আলোচনা করেন।
এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন বিজিএমইএ’র সহ-সভাপতি (অর্থ) খন্দকার রফিকুল ইসলাম, বিজিএমইএ’র সহ-সভাপতি মোঃ নাছির উদ্দিন এবং ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন টু বাংলাদেশের ডেপুটি হেড অব মিশন, জেরেমি ওপ্রিটেসকো।
বিজিএমইএ সভাপতি কোভিডকালীন সময়ে বেকার হয়ে পড়া শ্রমিকদের জন্য ইইউ যে তহবিল বিতরনের উদ্যোগ নিয়েছে, তার অগ্রগতিও জানতে চান। তিনি দক্ষতা ও শিল্পের উদ্ভাবনী সক্ষমতা বাড়াতে বিজিএমইএ এর নতুন উদ্যোগ, বিজিএমইএ ইনোভেশন সেন্টার ও এলডিসি উত্তরন বিষয়ে গবেষনার জন্য ইইউ’কে সহযোগিতা দেয়ার অনুরোধ জানান।
ইইউ এর পক্ষ থেকে বাংলাদেশের পোশাক শিল্পকে অব্যাহতভাবে বন্ধুত্বপূর্ন সহযোগিতা দিয়ে আসার জন্যও বিজিএমইএ সভাপতি ইইউ রাষ্ট্রদূতকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।