বিশেষ সুবিধায় নতুন আবেদন নিবে না ব্যাংকগুলো

255
0

ঋণ পুনঃতফসিলের বিশেষ নীতিমালার আওতায় নতুন করে আর কোন আবেদন না নেয়ার জন্য বলেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এ নীতিমালায় বেঁধে দেয়া ৯০ দিনের সময়সীমা শেষ হয়ে যাওয়ায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

নতুন আবেদন বন্ধ থাকলেও এ পর্যন্ত জমা হওয়া আবেদনগুলো নিস্পত্তির বিষয়ে কার্যক্রম গ্রহণ করা যাবে বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। সে হিসেবে আগামী ১৯ নভেম্বরের মধ্যেই বিশেষ নীতিমালার আওতায় জমা পড়া সব আবেদন ব্যাংকগুলোকে নিস্পত্তি করতে হবে। এছাড়া আবেদন নিস্পত্তিকালিন সময়ে নীতিমালার আওতায় পুনঃতফসিল সুবিধা নেয়া ঋণগ্রহীতাদের নতুন করে ঋণ না দিতেও নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

আজ বুধবার বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত একটি সার্কুলার জারি করা হয়েছে। সার্কুলারটি দেশের বানিজ্যিক ব্যাংকগুলোর নির্বাহী কর্মকর্তাদের কাছে পাঠানো হয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

আপিল বিভাগ দুই মাসের জন্য যে আদেশ দিয়েছিলেন, সেটির মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় তা ২০ অক্টোবর পর্যন্ত বাড়ানোর আদেশ দেন হাইকোর্ট। গত রোববার শেষ দিন হওয়ায় ওই নীতিমালার কার্যকারিতা নতুন করে আরও ১ মাস অথবা এ সংক্রান্ত রিট পিটিশন নিস্পত্তির তারিখ পর্যন্ত বাড়ানোর আদেশ দেন হাইকোর্ট। এতে ওই নীতিমালার আওতায় আরও ১ মাস আবেদন করার সুযোগ পেতেন ঋণখেলাপিরা।

কিন্তু হাইকোর্টের এই আদেশ দেয়ার তিন দিনের মাথায় গতকাল বুধবার বাংলাদেশ ব্যাংক এক সার্কুলার জারি করে করে জানিয়েছে, বিআরপিডি সার্কুলার লেটার নং-১৯/২০১৯ এর মাধ্যমে বেধে দেয়া সময়সীমা অর্থাৎ ২০ অক্টোবর তারিখ অতিক্রান্ত হওয়ায় নতুন করে আর কোন আবেদনপত্র গ্রহণ করা যাবে না। একই সঙ্গে নীতিমালার আওতায় পুনঃতফসিল ও এককালীন এক্সিট সুবিধাপ্রাপ্ত ঋণগ্রহীতাদের অনুক‚লে কোন নতুন ঋণ সুবিধা প্রদান করা যাবে না।

তবে হাইকোর্ট ডিশিনের সর্বশেষ আদেশের আলোকে ইতোপূর্বে গৃহিত আবেদনগুলো নিস্পত্তির বিষয়ে কার্যক্রম গ্রহণ করা যাবে।