ঢাকা পদাতিকের চার দশকপূর্তির উৎসব

216
0

নানা চড়াই-উৎরাই পেরিয়ে নাট্যজগতে চল্লিশ বছর পার করলো নাটকের দল ঢাকা পদাতিক। চারদশকে অনেক কিছুরই স্বাক্ষী হয়ে আছে দলটি। প্রতিষ্ঠার চার দশককে স্মরণীয় করে রাখতে নাটকের দলটি দুইদিনব্যাপী উৎসবের আয়োজন করেছে। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আনন্দঘন আয়োজনে থাকছে আলোচনা, নাটকের মঞ্চায়ন ও পদক প্রদানসহ নানা বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠান।

বৃহস্পতিবার জাতীয় নাট্যশালার পরীক্ষণ থিয়েটার হলের লবিতে প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মধ্য দিয়ে উৎসবের উদ্বোধন করেছেন সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আসাদুজ্জামান নূর।

উদ্বোধনকালে আসাদুজ্জামান নূর বলেন, নানা প্রতিকূলতার মধ্য দিয়েও মানুষ নাটক দেখতে আসছে এটা অবশ্যই নাটকের জন্য ইতিবাচক দিক। মাঝখানে নাট্যাঙ্গনে খরা থাকলেও ইদানিং নাটকের জগত বেশ চাঙ্গা হয়েছে। পুরনো ও নতুন দল বেশ কিছু নতুন প্রযোজনা মঞ্চে এনেছে। নাটকের জগতকে গতিশীল করার ক্ষেত্রে এটা অবশ্যই ভালো খবর।

আসাদুজ্জামান নূর আরো বলেন, নাটক নিয়ে নবীনরা খুব ভালো কাজ করছে। শিল্পকলা একাডেমি ও মহিলা সমিতির মঞ্চ ছাড়াও আরো যেসব মঞ্চ আছে সেগুলোতেও যদি নিয়মিত নাটক মঞ্চায়নের ব্যবস্থা করা যায় তাহলে নাট্যাঙ্গণ সামনে দিকে আরো বেশি এগিয়ে যাবে।

ঢাকা পদাতিকের সভাপতি মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুছ, অভিনেতা ও নির্দেশক নাদের চৌধুরী, গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশানের সেক্রেটারি জেনারেল কামাল বায়েজীদ, নাট্যকার-নির্দেশক মাসুম আজিজ এবং ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহম্মদ শওকত জামিল।

অনুষ্ঠানে নাট্যাঙ্গনে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ নাট্যজন ম. হামিদকে আবুল কাশেম দুলাল স্মৃতিপদক ও আসমা আক্তার লিজাকে গাজী জাকির হোসেন স্মৃতিপদক প্রদান করা হয়। সবশেষে মঞ্চায়ন হয় দলের নিয়মিত প্রযোজনার নাটক “কথা ৭১”। শুক্রবার শেষ হবে দুইদিনের এই উৎসব। সমাপনী সন্ধ্যায় একই মিলনায়তনে মঞ্চায়ন হবে দলের নিয়মিত প্রযোজনার নাটক ‘ট্রায়াল অব সূর্যসেন’।